কেশবপুরের কালোমুখ হনুমান

কেশবপুরের কালোমুখ হনুমান

Khulna Jashore

0 Reviews

Overview

এই হনুমান গুলোর ইংরেজি নাম কমনলেঙ্গুর। বাংলাদেশে এ প্রজাতির হনুমান প্রায় বিলুপ্তির পথে। শুধু কেশবপুর সদর এলাকা, ব্রক্ষকাঠি, রামচন্দ্রপুর, বালিয়াডাঙ্গা এবং পার্শ্ববর্তী মনিরামপুরের দুর্গাপুর গ্রামে এই হনুমান দেখা যায়। যশোরের কেশবপুরে রয়েছে ভবঘুরে প্রজাতির প্রায় ৪০০ কালোমুখী হনুমানের আবাস, আর তাই এলাকাটি কেশবপুরের হনুমান গ্রাম (Keshabpur Hanuman Gram) নামে পরিচিত হয়ে উঠেছে। ধারণা করা হয় কয়েকশ বছর ধরে কেশবপুরের ১০-১৫ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে চলছে বিরল প্রজাতির হনুমানগুলোর বিচরণ।


নৃ-তত্ত্ববিদদের মতে প্রায় ৪ কোটি বছর আগে কালোমুখী হনুমান প্রজাতির জন্ম হলেও নানা ঘাত প্রতিঘাত সহ্য করে অল্পসংখ্যক হনুমান পৃথিবীতে টিকে আছে। বর্তমানে কেবল বাংলাদেশের কেশবপুর এবং ভারতের নদীয়া জেলায় আচরণ এবং বুদ্ধিমত্তায় উন্নত কালোমুখ ভবঘুরে হনুমানের এই প্রজাতিটি দেখতে পাওয়া যায়।

২০ থেকে ৩০ বছর আগেও পাঁচ হাজারের অধিক হনুমান কেশবপুরে জুড়ে দাপিয়ে বেড়াতো। কিন্তু এখন মাত্র চারশত হনুমান জীবিত আছে। আবার বেশ কিছু হনুমান তাদের বসবাসের পরিবেশের রুপান্তরের কারণে দেশান্তরী হচ্ছে। এছাড়া বৃক্ষের অভাব ও পরিবেশগত কারণে হনুমানগুলো খাবার এবং আশ্রয়ের অভাবে কমতে শুরু করছে। এ ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে অচিরেই শুধু মাত্র নামসর্বস্ব হয়ে যাবে কেশবপুরের হনুমান গ্রাম।

Instruction

যাওয়ার ঊপায়  ঃ যশোর জেলা থেকে কেশবপুর উপজেলা সদরের দূরত্ব প্রায় ৩২ কিলোমিটার। স্থানীয় যেকোন পরিবহণ অথবা বাসে চড়ে যশোর থেকে কেশবপুর যেতে পারবেন